দাউদপুরে উদ্বোধন হলো টিএইচ এম ফাউন্ডেশনদাউদপুরে উদ্বোধন হলো টিএইচ এম ফাউন্ডেশন – দৈনিক গণ আওযাজ
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন

দাউদপুরে উদ্বোধন হলো টিএইচ এম ফাউন্ডেশন

গণ আওয়াজ ডেস্ক/১৩৯বার পড়া হয়েছে
আপডেট :শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

বৈষিক মহামারি করোনা ভাইরাসের পাদূর্ভাবে যখন গোটা বিশ্ব স্থবির, বিশ্ব যখন ছুটছে এক অর্থনৈতিক সংকটের পিছনে, মানুষের জীবিকা যখন স্থবির, মানুষ যখন দুমুঠো খাবার সংগ্রহের সংগ্রামে অস্থির, মানুষ যখন জীবিকা ও জীবন সংগ্রামে হিমসিম খাচ্ছে ঠিক তখনই দল মত নির্বিশেষে দাউদপুর ইউনিয়নের কিছু শিক্ষিত, ভদ্র, বিনয়ী ও মানবপ্রেমী যুবক এগিয়ে এসেছে তাদের পিছনে দাড়াতে আর তারই ধারাবাহিকতা গড়ে তুলেছে ” টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশন ”

আজ ২৪-০৭-২০২০ রোজ শুক্রবার৷ আইডিয়াল চাইল্ড কিন্ডারগার্টেনে এর সভাকক্ষে হয়েছে ফাউন্ডেশনের উদ্বোধন এবং উদ্বোধন উপলক্ষে বাস্তবিক গরিব অসহায়দের মাঝে বিতরন করা হয় ঈদ সামগ্রী।
তুষার খানের সঞ্চালনায় টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশনের উদ্বোধনী ও ঈদ সামগ্রী বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সলিমউদ্দিন চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ, জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর মালুম, উদ্বোধক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামি চিন্তাবিদ বেলদি দারুল হাদিস মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, জনাব মোঃ আবু বকর সিদ্দিক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন,
আমদিয়া কৃষক শ্রমিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আনোয়ার হোসেন,
বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আশরাফুল আলম খানঁ, প্রধান শিক্ষক কালনী হিরনাল উচ্চ বিদ্যালয়।
হাফেজ মাওলানা আঃ সালাম সাহেবের কোরআন তেলওয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়।
অনুষ্ঠানে স্বাগতিক বক্তব্যে টি. এইচ. ফাউন্ডেশনের সদস্য সালাউদ্দিন বলেন আমরা দাউদপুর ইউনিয়নের পাশাপাশি রূপগঞ্জের অসহায় মানুষের পাশে ও সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজ করার জন্য এই ফাউন্ডেশন টি গড়ে তুলি এবং এই টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশনের এর পূর্ণ রুপ হল তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা ফাউন্ডেশন যদিও তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব। কিন্তু আমাদের ফাউন্ডেশন সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক একটি সংগঠন এর কোন একক ব্যাক্তি সম্পৃক্ততা নেই এবং আমরা কারো মুখাপেক্ষী নই, আমাদের মূল ধর্ম মানব সেবা করা।
টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশনের আহ্বায়ক জোবায়ের হোসেন বাবু তার বক্তব্যে শুকরিয়া আদায় করে সকলকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, আমার অনেকদিনের স্বপ্ন ছিল রাজনীতির বাইরে থেকে মানব ও সমাজ সেবা করা আর যখনই করোনার কারনে মানুষ হিমশিম খাচ্ছিল তখনই মাথায় আসল আর বসে থাকার সময় নেই। তাই কিছু যুবকদের কে নিয়ে ১২-০৫-২০২০ ইং তারিখ সভা করেন এবং এখানে সবার প্রস্তাবে ফাউন্ডেশনের নাম করন করা হয় টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশন। তিনি বলেন যদিও এটা একটি ব্যাক্তির নামে করা হয়েছে। তথাপি ওনার সাথে এটার কোন ধরনের সম্পৃক্ততা নেই। আমরা আমাদের ফাউন্ডেশনকে শতভাগ রাজনীতি মুক্ত ব্যক্তিস্বার্থ মুক্ত রাখার জন্য বদ্ধপরিকর। এটা কোন ব্যাক্তি স্বার্থ বা ব্যাক্তি উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য নয় বরং মানব ও সমাজ সেবাই মূল লক্ষ্য। তিনি আরও বলেন আমরা এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যেমন গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাড়াতে চাই তেমনি চাই সামাজিক অবস্থার উন্নতি, যেমনি চাই শিক্ষায় উৎসাহ দিতে তেমনি চাই মাদক মুক্ত হতে, যেমনি চাই একটা দূষন মুক্ত সমাজ তেমনি চাই সবার মধ্যে সুষম বণ্টন।
উদ্বোধক জনাব মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক সাহেব সংগঠনের সাথে জরিত সকলকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন অত্র সমাজিক উন্নয়নের জন্য এমন অরাজনৈতিক সংগঠনের বিকল্প নেই, তিনি বলেন আমার দেখা জনাব তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা একজন মহৎ, সৎ এবং সাদা মনের মানুষ তাই ওনাকে স্বরনীয় করে রাখার জন্য তোমাদের এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে ভাল। তবে তোমরা যদি এটাকে শতভাগ রাজনীতি মুক্ত রাখতে পার তাহলে তেমাদের সফলতা আসবেই।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর মালুম বলেন, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে আজকের এই টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশন এবং এমন একটি মহতি কাজে আমাদে রাখার জন্য তাদের সবাইকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন। তিনি বলেন এই সংগঠনের বক্তব্য থেকে বুঝতে পারি সম্পূর্ণ রাজনীতি মুক্ত রেখে সংগঠনের মাধ্যমে হত দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়ানো ও সমাজ সেবা করাই এদের মূল উদ্দেশ্য। ব্যাক্তিগত ভাবে একেকজন একেক রাজনীতির সাথে জরিত থাকতেই পারে তবে সংগঠনকে রাখতে হবে সম্পুর্ন রাজনৈতিক মুক্ত। তবেই তোমাদের সফলতা আসবে ইনশাআল্লাহ। তিনি আরও বলেন বাংলাদেশ ব্যাক্তিনামে এমন অনেক ফাউন্ডেশন আছে তাই ওনার নামে ফাউন্ডেশন হওয়াটা কোন দোষের না। তাছাড়া এই দাউদপুরে তথা রূপগঞ্জে ওনার অবদান অস্বিকার করার মত নয় যা চির স্বরনীয়। এবং তিনি বলেন আমি তোমাদের যে কোন ভাল কাজের সাথে থাকব ইনশাআল্লাহ।
সভাপতির বক্তব্যে বলেন এই ফাউন্ডেশনটি করা হয়েছে একঝাক মেধাবী ও শিক্ষত তরুণদের সমন্বয়ে এবং আজকে যা ঈদ সামগ্রী বিতরন করা হচ্ছে তা তাদের নিজস্ব অর্থায়নে যেখানে কোন রাজনৈতিক ব্যাক্তির ছোয়া নেই।
সরজমিনে কথা বলে জানতে পারি স্বাধীনতা পূর্ব থেকে এই দাউদপুরের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, কর্ম জীবনে নিজেকে কেন কর্মের সাথে না জরিয়ে সমাজ সেবাকেই পেশা হিসাবে বেছে নিয়েছেন, মানুষ যখন অর্থের পিছনে অন্ধের মতন ছুটছে তখনও তিনি নিজেকে রেখেছেন সচ্ছ ও একজন নিঃস্বার্থ সমাজ কর্মী হিসাবে। এই এলাকায় শিক্ষা বিস্তারে ওনার অবদান অপরিসীম, স্বাধীনতা পরবর্তী তিনি দাউদপুর ইউনিয়নকে গড়ে তুলে এবং দাউপুর ইউনিয়নের অসংখ্য রাস্তা, কালবার্ট, ব্রিজ , স্কুল, মাদ্রাসা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ওনার অবদান অপরিসীম। তাই আমরা ওনাকে স্বরনীয় করে রাখার জন্য এবং সম্মান প্রদর্শন পূর্বক ফাউন্ডেশনের নাম করন করি টি. এইচ. এম ফাউন্ডেশন অর্থাৎ তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা ফাউন্ডেশন। আমরা এর দীর্ঘায়ু কামনা করি।
অনুষ্ঠান সফল ও সার্থক করার জন্য ফাউন্ডেশনের সকল সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন যাদের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা জজ কোর্টের এ্যাডভোকেট ভেনিজির মাহামুদ, আবদুর রহমান রাজ, মাহামুদুল হাসান, মাছুম আহমেদ , তুষার খান, মাহাবুব,জুয়েল মোল্লা মাছুম মোল্লা, পারভেজ মোল্লা, সুমন, হায়দার খান, আশরাফুল সোহাগ, নিশাত খান, আবিদ হাসান , হাফিজুল এছাড়াও নাম না জনা সকল সদস্য।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরো খবর