খুব তাড়াতাড়ি ভারতে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু হবেখুব তাড়াতাড়ি ভারতে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু হবে – দৈনিক গণ আওযাজ
বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন

খুব তাড়াতাড়ি ভারতে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু হবে

গণ আওয়াজ ডেস্ক/১০৬বার পড়া হয়েছে
আপডেট :মঙ্গলবার, ২১ জুলাই, ২০২০

করোনাভাইরাস সংক্রমণের গ্রাফে প্রতিদিন নতুন রেকর্ড গড়ছে ভারতে। ঝড়ের গতিতে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। দেশের কয়েকটি জায়গায় গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়ে গিয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গোষ্ঠী সংক্রমণের কথা স্বীকার করে নিয়েছে কেরালা। পশ্চিমবঙ্গেও কোথাও কোথাও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।
এই পরিস্থিতিতে আশার আলো জাগিয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা করোনাইভাইরাসের যে ভ্যাকসিন তৈরি করছেন, তা প্রাথমিক ভাবে সফল বলে জানা গিয়েছে। এই ভ্যাকসিনের প্রয়োগে মানুষের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ছে বলেই প্রমাণ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। ১০৭৭ জনের শরীরে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করার পর দেখা গিয়েছে যে তাঁদের শরীরে কোভিড ১৯ প্রতিরোধকারী অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে এবং উৎপন্ন হয়েছে শ্বেত রক্তকণিকা যা করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করে।
এই ভ্যাকসিনটির নাম ChAdOx1 nCoV-19। জানা গিয়েছে, খুব তাড়াতাড়ি ভারতেও এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার মানব শরীরে শুরু হবে। লাইসেন্স পাওয়ার পরে এই প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। ইউনাইটেড কিংডমের গবেষকদের সঙ্গে সহযোগী হিসেবে এই ভ্যাকসিন তৈরিতে কাজ করছে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া। এই সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন নির্মাণকারী সংস্থা। অক্সফোর্ডের গবেষকদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই সংস্থাও

করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে কাজ করছে।
সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার প্রধান আদার পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, ‘এই টিকা পরীক্ষার ফল খুবই ইতিবাচক পাওয়া গেছে এবং এর ফলাফলে আমরা খুবই খুশি।’ তিনি আরও বলেন, ‘তবে সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে টিকা ভারতীয় বাজারে ছাড়ার ক্ষেত্রে কোনও রকম তাড়াহুড়ো করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা। তিনি বলেন, ‘ভারতে এই টিকা পরীক্ষার অনুমতি পাওয়ার জন্য আমরা এক সপ্তাহের মধ্যে ভারত সরকারের কাছে আবেদন করব। আর অনুমোদন পেয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আমরা ভারতে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু করব। এছাড়াও, আরও বড় পদক্ষেপ হিসাবে আমরা খুব তাড়াতাড়ি ভারতেও এই ভ্যাকসিন উৎপাদনের কাজও শুরু করব।’ তবে সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে টিকা ভারতীয় বাজারে ছাড়ার ক্ষেত্রে কোনও রকম তাড়াহুড়ো করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা।

এদিকে ভারতে তৈরি দেশি করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনেরও মানব শরীরে পরীক্ষামূলক ব্য়বহার শুরু হয়েছে। এইমস দিল্লির প্রধান ডঃ রণদীপ গুলেরিয়া বলেছেন যে এই পরীক্ষামূলক ব্য়বহার কতটা সফল হচ্ছে তা পুরোপুরি জানতে গবেষকদের আরও মাস তিনেক সময় লাগবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরো খবর